img

গ্যাসের দাম বাড়ানোর মতো গণবিরোধী সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির আহমেদ রিজভী বলেছেন, তা না হলে রাজপথে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। 

শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় বিএনপির পক্ষ থেকে নিউজল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে বন্দুকধারীর গুলিতে বহু মানুষ হতাহতের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ এবং নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।

রিজভী বলেন, ভারতে এলএনজি আমদানি প্রতি ঘনমিটারে ৬ মার্কিন ডলার খরচ পড়লেও বাংলাদেশে ১০ ডলার খরচ পড়ছে। এ টাকা যাচ্ছে রাঘব বোয়ালদের পকেটে। গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধিতে বেশুমার দুর্নীতির মাধ্যমে ক্ষমতাসীনদের অর্থ উপার্জনের সুযোগ সৃষ্টি হবে। আর গ্যাসের দাম বৃদ্ধি নিয়ে সরকার যে গণশুনানির কথা বলছে, তা জনগণের সঙ্গে প্রতারণা ছাড়া কিছুই নয়।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের বার্ষিক মানবাধিকারবিষয়ক প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ বিএনপির এই নেতা বলেন, ওই প্রতিবেদনেও বলা হয়েছে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সরকার দুর্নীতির শক্ত প্রমাণ উপস্থাপন করতে ব্যর্থ হয়েছে। শুধু রাজনৈতিক কারণে তাকে বন্দি করে রাখা হয়েছে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশে সংসদীয় পদ্ধতির সরকার ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত আছে। কার্যত সব ক্ষমতাই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কেন্দ্রীভূত হয়ে আছে। 

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি দাবি জানান।

এ সময় দলের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, কেন্দ্রীয় নেতা শামসুজ্জোহা খান, মোস্তাক মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ