img

রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৭০ মরদেহ উদ্ধার হয়েছে; নিখোঁজ রয়েছেন অনেকে। বুধবার রাতে লাগা ওই আগুন পুরোপুরি নেভানো যায়নি। তবে তা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন; তাদের এখনও শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। 

ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, সকাল ৭টা পর্যন্ত আগুনের ঘটনায় ৭০ মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। এছাড়া অনেকে নিখোঁজ হয়েছেন।

নিখোঁজদের খোঁজে ঢাকা মেডিকেলসহ রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে ঘুরছেন তাদের স্বজনেরা। ভিড় করেছেন আগুন লাগা ওই এলাকায়ও। 

ঢাকা মেডিকেল কলেজের সামনে স্বজনের অপেক্ষায় থাকা এক ব্যক্তি সমকালকে বলেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তার দুইজন স্বজন নিখোঁজ হয়েছেন। তাদের খোঁজে হাসপতালে এসেছেন তিনি।

এছাড়া অন্য হাসাপতালগুলোর সামনেও স্বজনদের খোঁজ করছেন অনেকে। অনেককে কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা গেছে। কেউ কেউ আবার হাসাপতাল আর অগ্নিকাণ্ডের এলাকা ছুটোছুটি করছেন। 

চুরিহাট্টার এক‌টি দোকানে কাজ করতেন ইসমাইল। তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না অগ্নিকাণ্ডের পর থেকেই। তার ভাই জানিয়েছেন, ভাইকে খুঁজতে বেশ কয়েকটি হাসপাতালে খোঁজ করেছেন তিনি। তবে এখনও পাওয়া যায়নি। তার ফোনও বন্ধ।

বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে চুড়িহাট্টা মসজিদের পাশে হাজী ওয়াহেদ মিয়ার বাড়িতে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে আশপাশের আরও চারটি ভবনে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এরপর ফায়ার সার্ভিসের ৩৭টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে।

রাতেই দগ্ধ-আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও মিটফোর্ড হাসপাতালে নেওয়া শুরু হয়। দগ্ধ, আহত ও তাদের স্বজনের কান্নায় হাসপাতালের পরিবেশ ভারী হয়ে ওঠে।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ