img

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরদিন থেকেই পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় সম্ভাব্য উপজেলা প্রার্থীদের শুরু হয়েছে নির্বাচনী প্রচারণা। অপেক্ষমান নৌকার দলীয় মনোনয়ন পেতে প্রার্থীরা। নৌকা পেলেই নিশ্চিত উপজেলা চেয়ারম্যান। ফেজবুকে নিজ নিজ সমর্থকগণ পছন্দের প্রার্থীদের সুনাম করে চলছে পোষ্ট। কেউ কেউ করছেন গণ সংযোগ। কারো কারো দেখা যাচ্ছে ব্যনার ফেস্টুন টানিয়ে দৃষ্টি আকর্ষনের চেষ্টা। গাজীপর- ৩ এই আসনে নবনির্বাচিত এপি ইকবাল হোসেন সবুজ হওয়ায় অনেক নেতারাই স্বপ্নে বিভোর। এ নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মাজে চলছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। 

সাবেক সাংসদ পুত্র নৌকা বঞ্চিত জামিল হাসান দুর্জয় অনুসারী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল বলেন, আমি আবারো অবশ্যই নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ও  আশাবাদি। বর্তমান এমপি আমার দলের লোক। উনার সাথে আমার কোন বিরোধ নেই। দল যা সিদ্ধান্ত নিবে তা মাথা পেতে নিবো। দলের বাহিরে গিয়ে নির্বাচন করার সুযোগ নেই।

এ্যড সামসুল আলম প্রধান বর্তমান থানা আ'লীগের সভাপতি। লোকমুখে শোনা যায় মাননীয় এম পি সবুজের বাসায় তিনি দিনের বেশির ভাগ সময়ই পাড় করছেন। তিনি সাবেক এমপি এডভোকেট রহমত আলী ও তার পুত্র দুর্জয় এর সাথে ছিলেন দীর্ঘদিন। বেশ কিছুদিন যাবত বর্তমান এমপির সাথে রয়েছেন। সাধারণ মানুষ তার অবস্থানকে শক্তিশালী মনে করছেন।

সাবেক শ্রীপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এস এম আব্দুর রউফ বলেন, বিগত ২০০৮ নির্বাচনে সবুজ ভাই চেয়ারম্যান ও আমি ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে সততা ও দক্ষতার সহিত পরিষদ পরিচালনা করি। ২০১৪ নির্বাচনে সবুজ ভাই, মেয়র আনিছ ভাইসহ নেতৃবৃন্দকে মিথ্যা মামলা দিয়ে সরানো হয়। জয়ী হবার কথা থাকলেও হতে পারিনি। আমি এবার দলের কাছে ভাইস চেয়ারম্যান নয় উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী। দল যদি আমায় যৌগ্য মনে করে। অন্যথায় দল থেকে যা সিদ্ধান্ত আসে তাই মাথা পেতে নেব।

অন্যদিকে গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য মাহতাব উদ্দীন নির্যাতিত, ত্যাগী, কর্মীবান্ধব ও সাড়া উপজেলা চষে বেড়ানো একজন ভালো ব্যক্তি। তিনি বলেন, আমি আমার নেতা ও নেতা কর্মীদের সাথে যৌবনের পুরো সময়টি বিসর্জন দিয়েছি। আমি শ্রীপুর পৌর নির্বাচনের সবকটি ও জননেতা ইকবাল হোসেন সবুজ এর শ্রীপুর উপজেলার দুটি নির্বাচনে উল্ল্যেখ যৌগ্য ভূমিকা পালন করেছি। বিগত সময় সুখে দু:খে সমগ্র শ্রীপুর ব্যপি কর্মীদের পাশে থেকে হাল ধরেছি। আমার বিশ্বাস জেলা আওয়ামীলীগ আমাকেই মনোনয়ন দিবেন।

অপরদিকে সংগ্রামী এক নেতা  জেলা আ'লীগ সাংস্কৃতিক সম্পাদক কফিল উদ্দীন মন্ডল দীর্ঘ দিন যাবৎ বর্তমান এমপি ইকবাল হোসেন সবুজ এর দুর্দিনে পাশে ছিলেন। তিনিও মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। তিনি বলেন, কিছু না পেয়েও এত বছর নেতার সাথে ছিলাম। এখনও নেতা যেখানে রাখবেন সেখানেই থাকবো। নেতার প্রতি পুর্ন বিশ্বাস আমার। আমার আর কিছু বলার নেই।

গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হুমায়ুন কবির হিমু বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করে প্রথম থেকেই নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। বর্তমান এমপি ছাত্রনেতা থাকা অবস্থায় তার সাথে থেকে জেলা আওয়ামীলীগ সম্পাদক পর্যন্ত পৌঁছৈছে । তিনি বলেন, নেতা তাকে মাঠে কাজ করতে বলেছেন।

শ্রীপুরের আলোচিত ইউনিয়ন তেলিহাটির বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল বাতেন সরকারও উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী। তিনি বলেন, প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি দল যদি যৌগ্য মনে করে হয়েও যেতে পারি।

আরেক জন গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শাফি আহাম্মেদ মড়ল বলেন, আমি আমার কর্মী সমর্থকদের নিয়ে শ্রীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। আমি আশাবাদী সবুজ ভাই এর সমর্থন পাবো। নেতা কাউকেই কোন ইঙ্গিত বা আশ্বাস দেন নাই।

বর্তমান জেলা পরিষদ সদস্য খায়ের বিএসসিও মনোনয়ন প্রত্যাশী। তার সমর্থকগণ ফেজবুক, ব্যানার-ফেস্টুন দিয়ে প্রচারণা চালাতে দেখা গেছে। 

গাজীপুর জেলা সেচ্ছাবেবক লীগ সভাপতি মোশারফ হোসেনও মনোনয়ন প্রত্যাশী দাবী করেন। নেতা  উনাকে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান।

 অতি উৎসাহে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রতিযোগিতায় আরও দু’একজন থাকতে পারে।
সর্বোপরি ভোটারগণ মনে করেন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মতোই এবারও শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ